ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শারদীয় দুর্গোৎসব বাঙালি হিন্দুদের প্রধান উৎসব হলেও “ধর্ম যার যার, উৎসব সবার” মেয়র আতিক

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন-ডিএনসিসি মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম বলেছেন, মিরপুরের হরিরামপুরে নির্মাণাধীন শ্মশানঘাটের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে, খুব শীঘ্রই এটি উদ্বোধন করা হবে।

 

সোমবার ১১ অক্টোবর, সোমবার রাতে রাজধানীর বনানী মাঠে গুলশান-বনানী সার্বজনীন পূজা ফাউন্ডেশন কর্তৃক আয়োজিত শারদীয় দুর্গাপূজার অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন। ডিএনসিসি মেয়র বলেন, আবহমান কাল থেকেই বাঙালি হিন্দু সম্প্রদায় বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় ও উৎসবমুখর পরিবেশে নানা ধর্মীয় আচার ও অনুষ্ঠানাদির মাধ্যমে শারদীয় দুর্গাপূজা পালন করে আসছে।

 

মোঃ আতিকুল ইসলাম বলেন, শারদীয় দুর্গোৎসব বাঙালি হিন্দুদের প্রধান উৎসব হলেও “ধর্ম যার যার, উৎসব সবার” এ চেতনাকে ধারণ করে সকল সংকীর্ণতা ও ধর্মান্ধতার উর্ধ্বে উঠে ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে সর্বস্তরের জনগণ দুর্গোৎসবে অংশগ্রহণ করে থাকে।

 

তিনি বলেন, বাংলাদেশে বিদ্যমান বিভিন্ন ধর্মাবলম্বী ও সম্প্রদায়ের মধ্যে আনন্দঘন ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বিশ্বে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। ডিএনসিসি মেয়র বলেন, সবাই মিলে “দশটায় ১০ মিনিট প্রতি শনিবার, নিজ নিজ বাসাবাড়ি করি পরিষ্কার” স্লোগানটিকে বাস্তবায়নের মাধ্যমে সুস্থতার জন্য চলমান সামাজিক আন্দোলনকে সফল করতে হবে।

 

মোঃ আতিকুল ইসলাম আরও বলেন, “মাস্ক আমার, সুরক্ষা সবার” তাই বিদ্যমান করোনা পরিস্থিতিতে সকলকে সঠিকভাবে মাস্ক পরিধানসহ সরকারী নির্দেশনা ও স্বাস্থ্য বিধিসমূহ যথাযথভাবে মেনে চলতে হবে। গুলশান-বনানী সার্বজনীন পূজা ফাউন্ডেশনের সভাপতি দিলীপ দাস গুপ্তের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অনান্যের মধ্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।