ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

তেজগাঁওয়ে প্রাইভেটকারে মিলল অর্ধগলিত মরদেহ

[ছবি: সংগৃহীত]

রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল এলাকায় একটি গাড়ির ভেতর থেকে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার (৯ অক্টোবর) মধ্যরাতে ব্যস্ত ওই সড়কের পাশেই পার্কিং করা একটি দামি জিপ গাড়ির ভেতর থেকে সজল কুমার ঘোষের (৪০) নামে একজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে ধানমন্ডি থানা পুলিশের একটি দল।

 

 

মৃত্যু সজল ধানমন্ডির বাসিন্দা প্রকৌশলী কামাল হোসেনের গাড়িচালক। তার ইউডিসি কনস্ট্রাকশন নামে একটি প্রতিষ্ঠান রয়েছে মহাখালীতে। ৭ অক্টোবর থেকে রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ ছিলেন সজল। এ ঘটনায় গতকাল ধানমন্ডি থানায় একটি জিডি করেন কামাল। এরপর সজলের মোবাইল ফোন ট্র্যাকিংয়ের সূত্র ধরে গতকাল মধ্যরাতে গাড়ি ও তার ভেতরে একজনের মরদেহ পাওয়া যায়।

 

রাতে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, শতাধিক উৎসুক জনতা টয়োটা ফরচুনা ব্র্যান্ডের গাড়িটি (ঢাকা মেট্রো-গ ১১-৭৯৮৬) ঘিরে জড়ো হয়েছেন। তেজগাঁও বিভাগের পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাও সেখানে উপস্থিত ছিলেন। পুলিশের পক্ষ থেকে রাতেই সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিটকে খবর দেওয়া হয়। রাত ১টার দিকে সেখানে সিআইডির টিম এসে হাজির হলেও দরজা বন্ধ থাকায় গাড়ি খোলা তখনও সম্ভব হয়নি। রাত ২টার দিকে দরজা খুলে গলিত মরদেহ বের করা হয়।

 

তেজগাঁও বিভাগের ডিসি মো. শহীদুল্লা জানান, ধানমন্ডির ৬ নম্বর রোডের এক বাসিন্দা গাড়িসহ তার চালক নিখোঁজের ঘটনায় জিডি করেছেন। উদ্ধার হওয়া লাশটি ওই চালকের। গাড়ির মালিক কামাল হোসেন জিডিতে বলেন, ৭ অক্টোবর ৩টার দিকে তাকে ধানমন্ডির বাসায় নামিয়ে দেন চালক সজল। এরপর গাড়ি পার্কিং করতে মহাখালীতে তার যাওয়ার কথা ছিল। তবে অফিসে সজল যাননি। এরপর তার মোবাইলে কল দিলেও সাড়া দেননি। সজলের গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের ইটনায়। ঢাকার ভাটারার নূরের চালায় বাস করেন।

 

ধানমন্ডি থানার এক পুলিশ কর্মকর্তা জানান, গাড়ির মালিক একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জড়িত। চালকের ব্যাপারে জিডি করার পরই পুলিশ তদন্ত শুরু করে। চালকের মোবাইল ফোনের সূত্র ধরেই গাড়ির অবস্থান জানা যায়। তবে কখন থেকে গাড়িটি তেজগাঁওয়ের ব্যস্ত সড়কের পাশে পড়ে আছে, সেটা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। গাড়িতে প্রচুর ধুলাবালি মিশে আছে। এতে ধারণা করা হচ্ছে, দীর্ঘ সময় ধরেই গাড়িটি সেখানে রয়েছে। কেন কারা কী কারণে এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে, তা জানার চেষ্টা করছে পুলিশ।