ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

৩০ টাকায় নেমেছে কেজি প্রতি পেঁয়াজ

ফাইল ছবি

শীতের মৌসুমে রাজধানীর বাজারগুলোতে আরও এক দফা নেমেছে পেঁয়াজের দাম। বাজারে এখন সবচেয়ে ভালো মানের দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকা কেজিতে।

 

 

শুক্রবার (২৯ জানুয়ারি) খোঁজ নিয়ে জানা যায়, পেঁয়াজের পাশাপাশি আলু, টমেটোসহ প্রায় সব ধরনের সবজির দাম সাধারণ ক্রেতাদের নাগালের মধ্যে রয়েছে। ফলে ক্রেতাদের মধ্যে কিছুটা সস্তি ফিরেছে।

 

রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, খুচরা পর্যায়ে সবচেয়ে ভালো মানের দেশি পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৩৫ টাকার মধ্যে। কোনো কোনো ব্যবসায়ী দুই কেজি পেঁয়াজের দাম ৫৫ টাকাও রাখছেন। অপরদিকে পাইকারিতে দেশি পেঁয়াজের কেজি ২৫ টাকা বিক্রি হচ্ছে।

 

বিভিন্ন ব্যবসায়ীর সাথে কথা বলে জানা যায় পেঁয়াজের দাম। তাদের মধ্যে কারওয়ানবাজারের পেঁয়াজ ব্যবসায়ী মো. রুবেল মিয়া বলেন, এখন দেশি পেঁয়াজের ভরা মৌসুম। বাজারে দিন দিন ভালো মানের দেশি পেঁয়াজের সরবরাহ বাড়ছে। এ কারণে দামও কমছে।

 

তিনি আরো বলেন, এখন পেঁয়াজ সস্তা। এক পাল্লা পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১২০ থেকে ১২৫ টাকায়। এক সপ্তাহ আগেও যা ১৫০ টাকায় বিক্রি করেছি।

 

রামপুরার আরেক ব্যবসায়ী মো. খায়রুল বলেন, ভালো মানের দেশি পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকায়। এই পেঁয়াজ এক সপ্তাহ আগে ৩৫ টাকায় বিক্রি করেছি। পাইকারিতে দাম কমায় এখন আমরাও কম দামে বিক্রি করছি।

 

এদিকে, দাম কমেছে নতুন আলুর। খুচরা বাজারে এক কেজি নতুন আলু ১৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এক সঙ্গে দুই কেজি নিলে কোনো কোনো ব্যবসায়ী ৩৫ টাকা রাখছেন। এক সপ্তাহ আগে প্রতি কেজি নতুন আলুর দাম ছিল ২০ টাকা।

 

বাজারে স্বস্তি দিচ্ছে অন্যান্য সবজির দামও। শিমের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৫ থেকে ৩০ টাকায়। প্রতিটি ফুলকপি ও বাঁধাকপির বিক্রি হচ্ছে ১৫ থেকে ২০ টাকার মধ্যে। এছাড়া মূলা ১০ থেকে ১৫ টাকা, গাজর ১৫ থেকে ৩০ টাকা, বেগুন ১০ থেকে ২৫ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। ৪০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে বড় লাউ।

 

পেঁয়াজ ও সবজির দামে স্বস্তি প্রকাশ করে রামপুরার ব্যবসায়ী মামুন বিশ্বাস বলেন, সবজির এখন যে দাম তাতে আমরা বেশ খুশি। অল্প টাকায় পছন্দ মতো সবজি কিনতে পারছি। তবে চাল, তেল, চিনির দাম অনেক। এ পণ্যগুলোর দাম কমলে সবার জন্যই সুবিধা হয় বলে তিনি জানান।